গাজওয়ায়ে হিন্দ

রাসূল (সাঃ) একদিন পুর্ব দিকে তাকিয়ে বড় বড় নিশ্বাস নিচ্ছিলেন এমন সময় এক সাহাবী রাসূল (সাঃ) কে জিজ্ঞেস করলেন ইয়া রাসূলুল্লাহ আপনি এমন করছেন কেন। রাসূল (সা) বললেন আমি পুর্ব দিকে বিজয়ের গন্ধ পাচ্ছি। সাহাবী জিজ্ঞেস করলেন ইয়া রাসূলুল্লাহ আপনি কিসের বিজয়ের গন্ধ পাচ্ছেন।
Image may contain: outdoor

রাসূল (সাঃ) বললেন পুর্ব দিকে মুসলিম ও মুশরিকদের (যারা মুর্তিপুজা করেন) তাদের সাথে যুদ্ধ শুরু হবে। যুদ্ধটা হবে অসম। মুসলিম সেনাবাহিনী থাকবে সংখ্যায় সীমিত কিন্তু মুশরিক সেনাবিহিনী থাকবে সংখ্যায় অধিক।

ঐ যুদ্ধে মুসলিমরা এত বেশি মারা যাবে যে রক্তে মুসলিমদের পায়ের টাকুনি পর্যন্ত ডুবে যাবে। ঐ যুদ্ধে মুসলিমরা তিন ভাগে বিভক্ত থাকবে: এক ভাগ বিশাল মুশরিক বাহিনী দেখে ভয়ে পালিয়ে যাবে তারাই হলো জাহান্নামী। আর এক ভাগ সবাই যুদ্ধে শহীদ হবেন। শেষ ভাগ আল্লাহর ওপর ভরসা করে যুদ্ধ চালিয়ে যাবে এবং শেষ পর্যন্ত জয় লাভ করবেন।

নবীজি মুহাম্মদ ﷺ বলেন এই যুদ্ধ বদর সমতুল্য (সুবহানাল্লাহ) তিনি আরো বলেছেন ঐ সময় মুসলিমরা যে যেখানেই থাকুক না কেন তারা যেন সেই যুদ্ধে শরিক হন।
সুনানে নাসায়ী খন্ড ০১,পৃষ্টা ১৫২

সুনানে আবু দাউদ খন্ড ০৬,পৃষ্টা ৪২

সেই সময় অতি সন্নিকটে সমস্ত মুসলমানরা সতর্ক থাকবেন।।
ইয়া আল্লাহ পাক আপনি আমাকে সহ সমস্ত মুসলিম ভাই বোনদের ঈমানকে শক্তিশালী করুন।
এবং জিহাদে শরীক হওয়ার তৌফিক দান করুন।।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *